রবিবার , ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আবহাওয়া সংবাদ
  6. আমাদের সম্পর্কে
  7. ইসলাম
  8. উন্নয়ন-প্রকল্প
  9. একুশে বইমেলা
  10. কৃষি ও প্রকৃতি
  11. ক্যাম্পাস
  12. ক্রিকেট
  13. খেলাধুলা
  14. গণমাধ্যম
  15. চট্টগ্রাম

স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ: জাবি ছাত্রলীগ নেতাসহ চারজন রিমান্ডে

প্রতিবেদক
admin
ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২৪ ৬:১২ অপরাহ্ণ

নিউজ ডেস্ক:

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) মীর মশাররফ হোসেন হলের পাশে জঙ্গলে বহিরাগত এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় ছাত্রলীগ নেতাসহ চারজনকে তিন দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

রোববার ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাবেয়া বেগম এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

যাঁদের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে, তাঁরা হলেন—জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ৪৫তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ও শাখা ছাত্রলীগের আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৭তম ব্যাচের শিক্ষার্থী সাব্বির হাসান সাগর, ৪৬তম ব্যাচের সাগর সিদ্দিক ও ৪৫তম ব্যাচের হাসানুজ্জামান।

বিকেলে সাভার থানা-পুলিশ চারজনকে আদালতে হাজির করে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক মিজানুর রহমান প্রত্যেককে সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের অতিরিক্ত পিপি আনোয়ারুল কবীর বাবুল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শনিবার সকালে পুলিশ চারজনকে গ্রেপ্তার করে। এর আগে মধ্যরাতে ওই নারীকে ধর্ষণের ঘটনা জানাজানি হয়। রাত ১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ ঘটনার বিচার দাবিতে বিক্ষোভ করেন।

রবিবার সকালে ছয়জনকে আসামি করে আশুলিয়া থানায় মামলা করেন ওই নারীর স্বামী। পলাতক আছেন ভুক্তভোগীর পূর্বপরিচিত মো. মামুনুর রশিদ এবং স্বামীকে আটকে রাখায় সহায়তা ও মারধর করা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী মো. মুরাদ। ঘটনার পর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতা মোস্তাফিজকে সাময়িক বহিষ্কার এবং পরে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ তাঁকে স্থায়ী বহিষ্কার করেছে।

মামলার বর্ণনা অনুযায়ী, গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন হল-সংলগ্ন জঙ্গলে ওই নারীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। স্বামীকে হলের ‘এ’ ব্লকের ৩১৭ নম্বর কক্ষে আটকে রাখা হয়। ওই দম্পতির বাড়িতে ভাড়া থাকতেন মামুনুর রশিদ। এর পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল সন্ধ্যায় ভুক্তভোগীর স্বামীকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ডেকে আনা হয়। এরপর তাঁকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন হলের ‘এ’ ব্লকের ৩১৭ নম্বর কক্ষে আটকে রাখা হয়। এরপর তাঁর স্ত্রীর মাধ্যমে নিজের রেখে আসা জিনিসপত্র আনতে বলেন মামুন। সেগুলো নিয়ে ক্যাম্পাসে আসেন ওই নারী। জিনিসপত্র নিয়ে মামুন মশাররফ হোসেন হলের কক্ষে রেখে আসেন। এরপর নারীকে বলেন, তাঁর স্বামী অন্যদিক থেকে আসবেন। পরে ওই নারীকে হল-সংলগ্ন জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করা হয়।

 

সূত্র:আওয়ার নিউজ বিডি

সর্বশেষ - অন্যান্য

আপনার জন্য নির্বাচিত

সান্তাহার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ছায়ফুলকে বিদায় সংবর্ধনা

আদমদীঘিতে চুরি যাওয়া ট্রাক্টর মান্দা হতে উদ্ধার গ্রেফতার-৩

বিশ্ব ইজতেমায় মিলছে ১০ টাকা এক বদনা পানি !

পত্নীতলায় দিনব্যাপী ক্যান্সার চিকিৎসা ও স্টেকহোল্ডারদের করণীয় শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

আ’লীগের নেতা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম আর নেই

আদমদীঘির সাংবাদিক মনসুরের হামলাকারী এক সপ্তাহেও শনাক্ত হয়নি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দরিদ্রবান্ধব ….খাদ্যমন্ত্রী

বিপিএলে সিলেট স্ট্রাইকার্সকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স

প্রতিটি ক্ষেত্রে আরো স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা আনার চেষ্টা করা হবে : তথ্য প্রতিমন্ত্রী

আদমদীঘিতে মৎস্য ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, আটক-২